মাদকের চেয়ে ফেসবুক আসক্তি বেশি ভয়ংকর

148

বর্তমান সময়ে ফেসবুক আমাদের জীবনের একটি অংশ হিসাবে পরিণত হয়েছে। অনেকের সকালই শুরু হয় ফেসবুকের মাধ্যমে। সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমটির ইতিবাচক-নেতিবাক দুটি দিকই রয়েছে। বিশেষ করে ফেসবুকে আসক্তি আমাদের জীবনে নানা কুপ্রভাব ফেলছে। ক্ষতিগ্রস্ত হচ্ছে শিক্ষা-পারিবারিক-সামাজিক জীবন।

জার্নাল অব বিহেভিয়ার অ্যাডিকশনস-এ সম্প্রতি এক গবেষণাপত্র প্রকাশিত হয়েছে। এতে ফেসবুকে আসক্তিকে মাদকের মতো বিপদজনক বলা হয়েছে।



ওই গবেষণায় ৭১ জন অংশ নিয়েছেন। অংশগ্রহণকারীদেরকে ‘লোয়া গ্যাম্বলিং টাস্ক’ পরীক্ষা দেয়া হয়। ব্যক্তি সিদ্ধান্ত নেয়ার ক্ষমতা বিচার করতে প্রায়ই এই পরীক্ষা করে থাকেন মনোবিজ্ঞানীরা। গবেষণায় দেখা গেছে, যারা যত বেশি বাজে সিদ্ধান্ত বাছাই করেছেন তারা ততটাই সামাজিক মাধ্যম ব্যবহার করেন। যারা পরীক্ষায় ভালো করেছেন তারা সামাজিক মাধ্যম কম ব্যবহার করেন।



গ্যাম্বলিং টাস্কে আফিম, কোকেইন, মেথামফেটামিনসহ অন্যান্য মাদক অপব্যবহারকারী ব্যক্তিদেরকেও সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে আসক্ত ব্যক্তিদের মতো সিদ্ধান্ত নিতে দেখা গেছে বলে উল্লেখ করা হয়েছে। জানা গেছে, অধিকাংশ ক্ষেত্রেই আসক্তির কারণ হয়ে থাকে ফেসবুকে লাইক পাওয়া বা অন্যের মনোযোগ আকর্ষণ করা।



গবেষকরা বলছেন, ফেসবুকের মতো সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম মাত্র চার সপ্তাহের জন্য বন্ধ রাখলে মানুষের আচরণ ও মানসিক অবস্থার আমূল পরিবর্তন হয়। শুধু তাই নয়; টানা কয়েকদিনের জন্য ফেসবুক ব্যবহার বন্ধ রাখলে আসক্তি কমে যায়। ফেসবুক ব্যবহার বন্ধের কারণে মানুষ সমসাময়িক অনেক বিষয়ে জানতে পারেন না ঠিকই, কিন্তু তারা সুখী থাকেন।