28 November 2020

রক্তস্বল্পতা দূর করে যেসব খাবার

  • চ্যানেল১৯.নিউজ
  • আপডেট: Tuesday, November 17, 2020
  • 36 বার

আধুনিক লাইফস্টাইলে অভ্যস্ত আমাদের জীবনে প্রায়ই শরীরে নানা প্রয়োজনীয় উপাদানের ঘাটতি দেখা যায়। এদের মধ্যে একেবারে প্রথমেই বলা যায় আয়রন ঘাটতির কথা। আয়রনের ঘাটতিতে দেহের লোহিত রক্তকণিকার সংখ্যা একেবারে কমে যায়। কারণ, আয়রন ছাড়া দেহে হিমোগ্লোবিন তৈরি হয় না। আর হিমোগ্লোবিন তৈরি না হলে আমাদের দেহের বিভিন্ন কলা বা টিস্যু এবং পেশিতে অক্সিজেন পৌঁছায় না, এরা ঠিকভাবে কাজও করতে পারে না। ফলে রক্তস্বল্পতা বা অ্যানিমিয়া দেখা দেয়। তাই আসুন বিশেষ যেসব খাবারে প্রচুর পরিমাণে আয়রন থাকে, দেখে নেওয়া যাক তাদের তালিকা।

এক. বিট- শুধু আয়রনই না, প্রোটিন, কপার, ভিটামিন, সালফার, সবই থাকে এই বিটে।

দুই. বাঁধাকপি- আয়রনের ঘাটতি দূর করে, ওজন কমায়, ত্বক ভালো রাখে, রক্তচাপ কমায়, শরীর ডিটক্সিফাই করে।

তিন. ব্রোকোলি- প্রচুর পরিমাণে আয়রন, ভিটামিন বি, সি থাকে, ম্যাগনেসিয়াম এবং জিংক থাকে।

চার. বেদানা- এই ফলে যথেষ্ট পরিমাণে প্রোটিন, ভিটামিন, আয়রন, ফাইবার থাকে।

পাঁচ. আপেল- ইংরেজি প্রবাদেই রয়েছে দিনে একটি করে আপেল খেলে তা চিকিৎসকের থেকে দূরে রাখে।

ছয়. কমলালেবু- আমরা সবাই জানি কমলায় প্রচুর ভিটামিন সি থাকে। এ ছাড়া প্রচুর পরিমাণে আয়রন থাকে। কমলা শরীরের রোগপ্রতিরোধ ক্ষমতা বাড়ায়, ওজন কমায়।

সাত. পালং- প্রচুর পরিমাণে ভিটামিন, আয়রন, খনিজ থাকে। রক্তাল্পতা থেকে রক্ষা করে এবং হিমোগ্লোবিনের মাত্রা ঠিক রাখে। সম্প্রতি ফুড সেফটি অ্যান্ড স্ট্যান্ডার্ড অথরিটি দেহে আয়রন ঘাটতি কমানোর কিছু উপায় বাতলে দিয়েছে।

সাধারণত, শৈশবে, ঋতুকালীন অবস্থায় অবং গর্ভাবস্থায় নারীদেহে আয়রনের ঘাটতি হওয়ার প্রবল সম্ভাবনা থাকে। দেখে নেওয়া যাক ফুড সেফটি অ্যান্ড স্ট্যান্ডার্ড অথরিটির পরামর্শ।

১. আয়রন ফর্টিফায়েড স্টেপল (ভাত, আটা, ময়দা আয়রনসমৃদ্ধ লবণ) দিয়ে রান্না করা।

২. খাবারের সঙ্গে চা কফি পান না করা।

৩. আয়রনসমৃদ্ধ ফল এবং সবজি বেশি পরিমাণে খাওয়া।

৪. শরীরের আয়রনশোষণ ক্ষমতা বাড়াতে বেশি করে ভিটামিন সি সমৃদ্ধ খাবার খাওয়া। মাছ, মাংস, মুরগির ডিমে প্রচুর পরিমাণে আয়রন থাকে। এগুলো খেলে খুব সহজেই দেহে আয়রন পৌঁছায়। এ ছাড়া কোনও কোনও ফল আর সবজি না খেলেই নয়, তা আগেই বলে দেওয়া হয়েছে। বিশেষজ্ঞদের সঙ্গে কথা বলে একটা ডায়েট চার্ট বানিয়ে নিন, সুস্থ থাকুন।

All Right Reserved by © 2017-2020 | Privacy Policy